৫টি সহজ ফ্রিজ মেইন্টেনেন্স টিপস !!!

ফ্রিজ আপনার ঘরে বহুল ব্যবহৃত ইলেক্ট্রনিক্স আইটেম এর মধ্যে একটি। এটি আপনাকে ২৪/৭ সার্ভিস দিয়ে থাকে। তাই অন্যান্য ইলেক্ট্রনিক্স আইটেম থেকে ফ্রিজ আপনার কাছ থেকে একটু বেশি যত্নের প্রাপ্য। সঠিক এবং সহজ কিছু যত্ন নিলে একটি ফ্রিজ ১০-১৩ বছর পর্যন্ত আপনাকে দিতে পারে পারফেক্ট সার্ভিস।

আসুন জেনে নেই ৫টি সহজ উপায় যেভাবে রাখতে পারেন আপনার রেফ্রিজারেটরের যত্ন।

 

চেক কনডেনসার কয়েল

একটি নোংরা কনডেনসার কয়েল আপনার ফ্রিজের কাজ করার এনার্জি অনেকটাই কমিয়ে দেয়। ফ্রিজের তাপমাত্রা নিষ্কাশনের ক্ষেত্রে এটি বাধার সৃষ্টি করে। ফলে আপনার ফ্রিজের স্থায়িত্ব কমতে শুরু করে। সাধারণত কনডেনসার কয়েল থাকে আপনার ফ্রিজের পেছন দিকে। ফ্রিজের মেইন লাইন বন্ধ করে সুতি কাপর ব্যবহার করে ধিরে ধিরে কোয়েলটি পরিস্কার করুন। সাধারণত প্রতি ৩ মাস পর পর এটি পরিষ্কার করতে পারলে আপনার ফ্রিজের আয়ু বেড়ে যাবে বহুদিন।

 

ড্রেইন-হোল ও ড্রপ লাইন

অধিকাংশ ফ্রিজের পানি নিষ্কাশনের জন্যে একটি ড্রেইন-হোল থাকে। অনেক সময় খাবার বা অন্যান্য বস্তু কনা দিয়ে ফ্রিজের ড্রেইন-হোল আটকে যায়। তাই অন্তত ৩ মাস পর পর আপনার ফ্রিজের ড্রেইন-হোল পরিষ্কার করুন।

 

গ্যাস্কেট চেকিং

রেফ্রিজারেটরের দরজায় যে রাবারের আস্তরণ থাকে সেটি হচ্ছে গ্যাস্কেট। গ্যাস্কেট ফ্রিজের তাপমাত্রা ও গ্যাস লিক হওয়া থেকে রক্ষা করে। আর যদি গ্যাস্কেটে কোন লিক থাকে অথবা যদি আডজাস্ট ঠিক মত না হয় তাহলে ফ্রিজ বেশিদিন ব্যাবহার করা যায় না। তাই মাসে একবার ভেজা সুতি কাপড় দিয়ে গ্যাস্কেট পরিষ্কার করুন। এবং সেটি ঠিক মত আডজাস্ট হচ্ছে কিনা তা পরিক্ষা করুন।

 

ফিল্টার চেকিং

ফ্রিজে যদি আইস মেকার বা পানির ডিস্পেন্সার থাকে তাহলে অবশ্যই ফ্রিজে একটি ফিল্টার আছে যা একটি নির্দিষ্ট সময় পর পর পরিবর্তন করার দরকার হয়। সাধারণত বছরে একবার এই ফিল্টার পরিবর্তন করতে হয়। অথবা ফ্রিজের ম্যানুয়াল চেক করে আপনার ফ্রিজের ফিল্টার এর আপডেটিং ডেট সম্পর্কে জানতে পারেন। অথবা প্রফেশনালের মতামত নিন।

 

লেভেল চেকিং

আপনার ফ্রিজটি যদি সঠিক লেভেলে স্থাপন করা না হয় তাহলে পরবর্তীতে সেটি হতে পারে বহুমুখী সমস্যার কারন। সঠিক লেভেলে স্থাপিত না হলে ফ্রিজ ঠিক মত কাজ করতে পারে না। এমনকি দীর্ঘ সময় এমন ভাবে থাকলে ফ্রিজের বিভিন্ন অংশে ফাটল ধরতে পারে।

আসা করি এই টিপস সমূহ আপনার ফ্রিজটিকে ভাল রাখতে সাহায্য করবে। তবে যদি ইলেক্ট্রনিক্স এর ব্যাপারে আপনার তেমন কোন ধারনা না থাকে তবে নিজে থেকে রিস্ক না নেয়াই ভাল। প্রফেশনালের এর সাহায্য নিন। আপনার সব ধরনের ইলেক্ট্রনিক্স, মেইন্টেনেন্স সহ যাবতীয় সাহায্যের জন্যে আপনার সাথে সবসময় আছে হ্যান্ডিমামা

Share with Friends:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *